পবিত্রতা (তাহারাত)

ড. মোহাম্মদ সামিউল হক


( اللهم ثبتنى على الصراط يوم تزل فيه الاقدام واجعل سعيى فى ما يرضيك عنى يا ذا الجلال و الاكرام)

(আল্লাহুম্মা ছাবিবতনি আলাছ ছিরাতি ইয়াওমি তাযিল্লু ফিহিল আকদামি ওয়াজআলু সাইইফি মা ইউরযিকা আন্নি ইয়া যাল জালালি ওয়াল ইকরাম)

ওযুর শর্তাবলীর আহ্‌কাম

ওযুর পানির আহ্‌কাম

১- মুযায়াফ ও নাজিস (অপবিত্র) পানি দিয়ে ওযু করলে তা বাতিল হবে, তা জানা থাক বা নাই থাক যে, ঐ পানি নাজিব অথবা মুযায়াফ অথাব ভুলে গিয়ে থাকে (তৌযিহুল মাসায়েল, মাসআলা নং-২৬৫)

২- ওযুর পানি অবশ্যই মুবাহ্‌ হতে হবে। সুতরাং নিম্নলিখিত ক্ষেত্রে ওযু বাতিল হবে যথা:

- এমন পানি দিয়ে ওযু করা যার মালিক রাজি নয় (মালিকের রাজি না থাকাটা পরিস্কার হতে হবে)।

- এমন পানি যার মালিক আদৌ রাজি আছে কি না তা জানা নেই।

- এমন পানি যা কিছু বিশেষ লোকের জন্য ওয়াক্‌ফ করা হয়েছে। যেমন, মাদ্রাসার হাউজের পানি এবং কোন কোন হোটেলের ওযু খানা ও ... (আল্‌ উরওয়াতুল উসকা, খণ্ড-১, ফাসলূ ফিশ শারায়েতিল ওযু, পৃঃ-২৯১-২২৫, মাসআলা নং-৬,,, তৌযিহুল মাসায়েল, মাসআলা নং-২৬৫)

৩- বড় বড় পুকুরে ওযু করা, যদিও মানুষের জানা না থাকে সেগুলোর মালিকগণ রাজি আছে না নেই তাতে কোন সমস্যা নেই। কিন্তু যদি সেগুলোর মালিকগণ যদি তাতে ওযু করায় বাধা দেয় তবে এহতিয়াতে ওয়াজিব হচ্ছে ঐ পুকুর গুলোতে ওযু না করা (তৌযিহুল মাসায়েল, মাসআলা নং-২৭১)



back 1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 next